টয়লেট ক্লিয়ার দ্বারা টয়লেট পরিষ্কারের কৌশল ব্যাখ্যা কর | টয়লেট ক্লিনার সম্পর্কিত সংক্ষিপ্ত প্রশ্নসমূহ

টয়লেট ক্লিয়ার দ্বারা টয়লেট পরিষ্কারের কৌশল
টয়লেট ক্লিয়ার দ্বারা টয়লেট পরিষ্কারের কৌশল

টয়লেট ক্লিনার দ্বারা টয়লেট পরিষ্কারের কৌশল:

টয়লেট ক্লিনারকে যখন টয়লেটের উপর ঢালা হয় তখন টয়লেট ক্লিনারের বিভিন্ন উপাদান বিভিন্নরূপে‌ বিক্রিয়া করে। টয়লেট ক্লিনারের মূল উপাদান NaOH এর ক্ষারধর্মী ধর্মের জন্য টয়লেট পরিষ্কার হয়। 

টয়লেট ক্লিনারের সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট (NaOCl) পানির সাথে বিক্রিয়া করে হাইপোক্লোরাস এসিডে (HOCI) পরিণত হয় যা ভেঙে জায়মান অক্সিজেন উৎপন্ন করে। এই জায়মান অক্সিজেন রঙিন পদার্থকে বর্ণহীন করে এবং জীবাণুকে ধ্বংস করে।

NaOCl + H2O → NaOH + HOCI

HOCI → HCl + [O]

রঙিন পদার্থ + [o] → বর্ণহীন পদার্থ

জীবাণু + [O] → মৃত জীবাণু

এভাবে টয়লেট ক্লিনার রঙিন পদার্থকে বর্ণহীন করে এবং জীবাণুকে ধ্বংস করে। (তৃতীয় বন্ধনীর মধ্যে অক্সিজেন পরমাণু দিয়ে জায়মান অক্সিজেনকে বোঝানো হয়। জায়মান অক্সিজেন [0]

কিছু সংক্ষিপ্ত প্রশ্নসমূহ:

১. টয়লেট ক্লিনারের মূল উপাদান কি?

= সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড (NaOH)।

২. টয়লেট ক্লিনারে সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড এর সাথে কি মিশ্রিত থাকে?

= সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইড (NaOCl)।

৩. টয়লেট, বেসিন, কমোড ইত্যাদিতে টয়লেট ক্লিনার যোগ করলে কি হয়?

= টয়লেট, বেসিন, কমোড ইত্যাদিতে চর্বি জাতীয় পদার্থ, প্রোটিন জাতীয় পদার্থ, বিভিন্ন রং এর জৈব পদার্থ, অজৈব পদার্থ, রোগজীবাণু ইত্যাদি থাকে। যখন টয়লেট, বেসিন, কমোড ইত্যাদিতে টয়লেট ক্লিনার যোগ করা হয়, তখন সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড চর্বি জাতীয় পদার্থ, প্রোটিন জাতীয় পদার্থ ইত্যাদির সাথে বিক্রিয়া করে এবং সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইড বিভিন্ন রঙের পদার্থ এবং রোগজীবানুর সাথে বিক্রিয়া করে এদের কার্যকারিতা নষ্ট করে দেয়।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url