ইউরিয়ার প্রস্তুতি ও ব্যবহার | চুনাপাথরের ব্যবহার

চুনাপাথরের ব্যবহার
ইউরিয়া

ইউরিয়া (Urea) কিভাবে প্রস্তুত করা হয়?

= ইউরিয়া মূল্যবান পদার্থ। কার্বন ডাইঅক্সাইড এবং অ্যামোনিয়া গ্যাসের মিশ্রণকে উচ্চ চাপে এবং 130°-150°C তাপমাত্রায় উত্তপ্ত করলে প্রথমে অ্যামোনিয়াম কার্বামেট (NH2COONH4) উৎপন্ন হয়। পরবর্তীতে অ্যামোনিয়াম কার্বামেট ভেঙে ইউরিয়া (NH2-CO-NH2) প্রস্তুত হয়।

CO2 + 2NH3 → NH2COONH4

NH2COONH4 → NH2-CO-NH2 + H2O

ইউরিয়ার ব্যবহার:

= শিল্পক্ষেত্রে এবং কৃষিক্ষেত্রে ইউরিয়ার ব্যাপক ব্যবহার রয়েছে। শিল্পক্ষেত্রে ইউরিয়া থেকে ম্যালামাইন পলিমার তৈরি করা হয়। কৃষিক্ষেত্রে ইউরিয়াকে সার হিসেবে ব্যবহার করা হয়। জমিতে ইউরিয়া সার দেওয়া হয় যাতে গাছ ইউরিয়া সার থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান নাইট্রোজেন গ্রহণ করতে পারে। উদ্ভিদ সরাসরি N2 গ্রহণ করে না। মাটিতে ইউরিয়েজ এনজাইমের উপস্থিতিতে ইউরিয়া পানির সাথে বিক্রিয়া করে NH4+, OH- এবং CO2 তৈরি করে। উদ্ভিদ এই NH4+ শোষণ করে।

NH2-CO-NH2 + 3H20 ইউরিয়েজ এনজাইম
2NH4+ + 20H- + CO2

আমাদের দেশে কোথায় প্রচুর পরিমাণে চুনাপাথর পাওয়া যায়?

= আমাদের দেশে সুনামগঞ্জ জেলায় এবং সেন্টমার্টিন দ্বীপে প্রচুর চুনাপাথর পাওয়া যায়।

চুনাপাথর কি তৈরিতে প্রধান উপাদান হিসেবে ব্যবহার করা হয়?

= সিমেন্ট তৈরি করার প্রধান উপাদান হিসেবে চুনাপাথর ব্যবহার করা হয়।

মাটিতে কেন চুনাপাথর ব্যবহার করা হয়?

= কোনো কারণে মাটি যদি অম্লীয় হয় অর্থাৎ মাটিতে যদি H+ এর পরিমাণ বেড়ে যায় তবে মাটির অম্লত্ব কমানোর জন্য সেই মাটিতে চুনাপাথর প্রয়োগ করা হলে চুনাপাথর H+ এর সাথে বিক্রিয়া করে ক্যালসিয়াম আয়ন (Ca+), কার্বন ডাই-অক্সাইড এবং পানি তৈরি করে। ফলে মাটির অম্লত্ব কমে যায়।

CaCO3 + 2H+ → Ca2+ + CO2 + H20
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url