কঠিন, তরল ও বায়বীয় বা গ্যাসীয় পদার্থের বৈশিষ্ট্য সমূহ

কঠিন, তরল ও বায়বীয় বা গ্যাসীয় পদার্থের বৈশিষ্ট্য সমূহ
কঠিন, তরল ও বায়বীয় বা গ্যাসীয় পদার্থের বৈশিষ্ট্য

প্রশ্নঃ কঠিন পদার্থের বৈশিষ্ট্য গুলি লেখ?

উত্তরঃ কঠিন পদার্থের বৈশিষ্ট্য গুলো নিম্নরূপঃ

১.কঠিন পদার্থের নির্দিষ্ট ভর, নির্দিষ্ট আয়তন এবং আকার আছে।

২. কঠিন পদার্থের আন্তঃকণা আকর্ষণ শক্তি সবচেয়ে বেশি।

৩. কঠিন পদার্থের আন্তঃআণবিক দূরত্ব সবচেয়ে কম।

৪. অনু সমূহ সবচেয়ে কাছাকাছি এবং নির্দিষ্ট স্থানে অবস্থান করে।

৫.কঠিন পদার্থে চাপ প্রয়োগ করলে সংকুচিত হয় না।

৬. কঠিন পদার্থের তাপ প্রয়োগ করলে এর আয়তন সামান্য বৃদ্ধি পায়।

প্রশ্নঃ তরল পদার্থের বৈশিষ্ট্য গুলি লেখ?

উত্তরঃ তরল পদার্থের বৈশিষ্ট্য গুলো নিম্নরূপঃ

১.তরল পদার্থের নির্দিষ্ট ভর ও নির্দিষ্ট আয়তন আছে কিন্তু নির্দিষ্ট আকার নেই।

২. তরল পদার্থের আন্তঃআণবিক শক্তি কঠিন পদার্থের থেকে কম।

৩. তরল পদার্থের আন্তঃআণবিক দূরত্ব কঠিন পদার্থের থেকে বেশি।

৪. এই পদার্থের অণুসমূহ পরস্পর থেকে একটু দূরে অবস্থান করে এবং মুক্তভাবে চলাচল করতে চায়।

৫. একে চাপ প্রয়োগ করা হলে আয়তন হ্রাস পায় না।

৬. এই পদার্থকে তাপ প্রয়োগ করা হলে আয়তন কঠিন পদার্থের থেকে বেশি বৃদ্ধি পায়।

প্রশ্নঃ বায়বীয় পদার্থের বৈশিষ্ট্য গুলি লেখ?

উত্তরঃ বায়বীয় পদার্থের বৈশিষ্ট্য গুলো নিম্নরূপঃ

১. বায়বীয় পদার্থের নির্দিষ্ট ভর আছে কিন্তু নির্দিষ্ট আয়তন ও নির্দিষ্ট আকার নেই।

২. বায়বীয় পদার্থের আন্তঃকণা আকর্ষণ শক্তি নেই বললেই চলে।

৩.এই পদার্থের আন্তঃআণবিক দূরত্ব সবচেয়ে বেশি। 

৪.এই পদার্থের অণুসমূহ পরস্পর থেকে সর্বোচ্চ দূরত্ব অবস্থান করে এবং মুক্তভাবে চলাচল করে।

৫.বায়বীয় পদার্থকে চাপ প্রয়োগ করলে এর আয়তন হ্রাস পায়।

৬.এই পদার্থকে তাপ প্রয়োগ করা হলে এর আয়তন সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পায়।

0 Comments