কিভাবে গলনাঙ্ক নির্ণয় করার মাধ্যমে কোনো কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অশুদ্ধ তা নির্ণয় করা যায় তা দেখানো হলো

গলনাঙ্ক নির্ণয় করার মাধ্যমে কোনো কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অশুদ্ধ তা নির্ণয় কর
গলনাঙ্ক নির্ণয় করার মাধ্যমে কোনো কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অশুদ্ধ তা নির্ণয় কর

গলনাঙ্ক নির্ণয় করার মাধ্যমে কোনো কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অশুদ্ধ তা নির্ণয় করা যায় ব্যাখ্যা করো ?

ত্তরঃ প্রত্যেক বিশুদ্ধ কঠিন পদার্থের একটি নির্দিষ্ট গলনাঙ্ক  থাকে। কঠিন পদার্থ একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় গলে থাকে। যদি দেখা যায়, কোনো কঠিন পদার্থের গলনাঙ্ক  ছাড়া অন্য কোনো তাপমাত্রায় গলছে সেক্ষেত্রে ধরে নিতে হবে পদার্থটি অবিশুদ্ধ ।আবার যদি দেখা যায়, কঠিন পদার্থটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় তাপমাত্রার পরিসরে বলছে তাহলেও কঠিন পদার্থ  অবিশুদ্ধ । যেমন- 1 বায়ুমন্ডলীয় চাপে বিশুদ্ধ সালফারের গলনাংক 115°C । কিন্তু কোনো একটি সালফার নমুনার গলনাঙ্ক নির্ণয় করার সময় যদি দেখা যায় ওই সালফারের 115°C  তাপমাত্রা অপেক্ষা কম তাপমাত্রায় গলছে তবে বুঝতে হবে ওই সালফারটি ভেজালযুক্ত অর্থাৎ অবিশুদ্ধ ।

এভাবে গলনাঙ্ক নির্ণয়ের মাধ্যমে কঠিন পদার্থ বিশুদ্ধ নাকি অবিশুদ্ধ তা নির্ণয় করা যায়।


Post a Comment

0 Comments