পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ ২০২২

পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ
পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ ২০২২ সকল শ্রেণীর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই পদ্মা সেতু সম্পর্কে আমাদের জানা উচিত। কারণ পদ্মা সেতু শুধু একটি সেতু নয়, এটি বাংলাদেশের একটি সম্পদ, গৌরব ও গর্ব।

 তাই পদ্মা সেতু সবারই জানা উচিত। এটি সকল শ্রেণী ও বোর্ড পরীক্ষার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই আপনাদের সুবিধার্থে পদ্মা সেতুর অনুচ্ছেদটি নিচে দেওয়া হল:

পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ 

পদ্মা সেতু বাংলাদেশের স্বপ্নের একটি প্রকল্প। এটি পদ্মা নদীর উপর একটি বহুমুখী সড়ক ও রেল সেতু। শেষ হলে এটি হবে বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম সেতু। নির্মাণ যাত্রা 7 ডিসেম্বর 2014 সালে চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড দ্বারা শুরু হয়েছিল। পুরো নির্মাণ মে 2022 এর মধ্যে শেষ হয়েছিল। 2022 সালের 25 জুন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতুটি উদ্বোধন করেছেন।

দ্বি-স্তরের স্টিল ট্রাস ব্রিজটি 6.15 কিলোমিটার দীর্ঘ এবং 18.10 মিটার চওড়া। এটির উপরের স্তরে একটি চার লেনের মহাসড়ক এবং নীচের স্তরে একটি একক ট্র্যাক রেলপথ রয়েছে। পুরো প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে 3.868 বিলিয়ন মার্কিন ডলার (ভ্যাট এবং আইটি সহ)।

শুরুতে তহবিল এবং অন্যান্য অর্থনৈতিক বিষয় বিবেচনা করা সহজ ছিল না যখন বিশ্বব্যাংক তার ক্রেডিট চুক্তি বাতিল করেছিল। অবশেষে, দেশটি নিজস্ব অর্থায়নে এগিয়ে এসেছিল। শুধু অর্থনৈতিক সমস্যাই ছিল না, পরিবেশগত সমস্যাও ছিল। পদ্মা নদীর দুটি প্রকৃতি রয়েছে - শীতকালে শান্ত এবং গ্রীষ্মে নিষ্ঠুর। সুতরাং, নির্মাণ প্রক্রিয়া 6 ভাগে বিভক্ত ছিল।

প্রথমটি ছিল মূল সেতু নির্মাণ। দ্বিতীয় অংশ ছিল নদী প্রশিক্ষণের কাজ প্রায় 14 কিমি । তৃতীয় ও চতুর্থ অংশ দুটি মহাসড়কের সঙ্গে মূল সেতুর সংযোগ স্থাপন করছিল। চূড়ান্ত অংশ ছিল সেবা এলাকা নির্মাণ এবং তত্ত্বাবধান.

সেতুটি দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলকে রাজধানী ও পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে যুক্ত করবে। এর ফলে আঞ্চলিক সহযোগিতা ও পরিবহন ব্যবস্থাপনা উন্নত হবে। এছাড়া এটি শিল্প উন্নয়নে আমূল পরিবর্তন ঘটাবে। চিকিৎসা ও শিক্ষা সুবিধা সহজলভ্য হবে।

ফলে এটি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক খাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 2021 সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতু উদ্বোধন হওয়ার কথা। বিশ্ব গর্বিত বাংলাদেশের আরও একটি ইতিহাসের সাক্ষী হবে।

>>>> পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদটি সবার উপকারে আসবে বলে আশা করছি।

0 Comments